ফেসবুক রিলস থেকে আয় করা যেন এখন খুব সহজ হয়ে গেছে।

এখন আপনারা ফেসবুক পেজ ছাড়াই রিলস থেকে আয় করতে পারছেন।

ফেসবুক প্রোফাইল থেকে প্রফেশনাল মোড ( Professional Mode) চালু করেই রিলস (Reels) থেকে টাকা আয় করা যাচ্ছে।

আর আমরা এখন প্রায় সকলেই ফেসবুকে সময় কাটাই ভিডিও দেখে।

আর আমাদের সকলের পছন্দ ছোট ছোট ভিডিও। এদেরকে রিলস ভিডিও বলে।

এই রিলস বানিয়ে মোটা অংকের টাকাও আয় করা যায়।

অনলাইনে নানা উপায়ে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে।

এছাড়া মোবাইলে ফ্রিতে ডলার ইনকাম সাইট থেকে সহজেই ইনকাম করা যাচ্ছে।

এছাড়া Blogging, Youtubing করে টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে।

ঠিক একই ভাবে ফেসবুকে রিলস ভিডিও বানিয়ে প্রচুর টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে।

আমরা সকলেই ফেসবুক থেকে টাকা আয় কিভাবে করা যায় কমবেশি সকলেই জানি। এখানে আমরা ফেসবুক reels থেকে ইনকামের বিষয় নিয়ে জানব।

ফেসবুক রিলস (Reels) কি?

ফেসবুক রিলস মূলত শর্ট ভিডিও। এই ভিডিও গুলি ৩ সেকেন্ড থেকে ৯০ সেকেন্ডের মধ্যে হয়ে থাকে। এই ভিডিও গুলি ৯:১৬ রেসিও (Ratio) এর মধ্যে হয়ে থাকে।

বর্তমানে ফেসবুক রিলস ভিডিও অনেক জনপ্রিয়। মানুষ সাধারণত ফেসবুকে রিলস ভিডিও স্ক্রল করে দেখতে খুবই পছন্দ করে। আর আপনি চাইলে এই ধরনের ভিডিও খুব সহজে বানিয়ে ইনকাম করা শুরু করে দিতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ

ফেসবুক রিলস থেকে আয় করার জন্য ভিডিও আপলোড দেওয়ার নিয়ম

আপনি চাইলে যেকোন ধরনের ভিডিও আপলোড দিতে পারেন। তবে এই বিষয়গুলি খেয়াল করলে ভাল হয়-

  • ভিডিও গুলি ১ মিনিটের মধ্যে হলে ভাল হয়।
  • এখানে ফানি, শিক্ষামূলক, তথ্যমূলক সকল ধরনের ভিডিও দেওয়া যাবে।
  • আপনি চাইলে যেকোন বড় ভিডিও এর কিছু অংশ কেটে দিতে পারেন।
  • ভিডিও এর রেসিও (ratio) 9:16 হতে হবে।
  • ভিডিও mp4 ফরম্যাটের হতে হবে।
  • ভিডিও এর রেজুলেশন 1080p হতে হবে।

ফেসবুক রিলস থেকে আয় করার উপায়

এখানে দুইভাবে আপনি ফেসবুকে রিলস ভিডিও দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। উপায়গুলি হলঃ

১. ফেসবুক পেজে (Facebook page) রিলস ভিডিও আপলোড করে

এই উপায়ে ফেসবুক পেজে খুব সহজেই রিলস ভিডিও আপলোড করে। খুব সহজেই ইনকাম করা যায়। দেখে নিন কিভাবে কিভাবে এটি করব-

ফেসবুক পেজে ঢুকুনঃ

ফেসবুক অ্যাপ থেকে যে পেজে রিলস আপলোড করতে চান। সেই পেজে ঢুকতে হবে।

Reels বাটনে ক্লিক করাঃ

পেজের উপরের ডান দিকের থ্রি ডটে ক্লিক করে Reels বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর Create reel বাটনে ক্লিক করতে হবে।

Reels ভিডিও আপলোড করাঃ

এখান থেকে আপনি একটি রিল (reel) ভিডিও বানাতে পারবেন অথবা আপনার মোবাইলে কোন রিল ভিডিও থেকে থাকলে তা আপলোড করতে পারবেন। রিলস (reel) ভিডিও আপলোড করার পর এর সাথে একটি Title যুক্ত করে দিতে হবে। এরপর Share now বাটনে ক্লিক করতে হবে।

২. ফেসবুক প্রোফাইলে (Facebook profile) রিলস ভিডিও আপলোড করে

ফেসবুক প্রোফাইল থেকে রিলস ভিডিও দিয়েও টাকা ইনকাম করা যায়। দেখুন এটা কিভাবে করবেন-

প্রফেশনাল মোড অন করাঃ

প্রথমে ফেসবুক প্রোফাইলটিতে প্রফেশনাল মোড অন করতে হবে। প্রফেশনাল মোড অন করার জন্য প্রথমে ফেসবুক প্রোফাইল যদি লক করা থাকে।

তাহলে আনলক করে নিতে হবে।এরপর প্রফাইল থেকে উপরের থ্রি ডটে ক্লিক করে Turn on professional mode এ ক্লিক করে অন করে নিতে হবে। এরপর প্রফাইল থেকে Follow বাটন দেখাবে।

Reels ভিডিও আপলোড করাঃ

এরপর ফেসবুক প্রোফাইলের উপরের দিকের প্লাস আইকনে ক্লিক করে Reel বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনি আপনার মোবাইলে থাকা ছোট ১ মিনিটের কম সময়ের ভিডিওগুলি আপলোড দিবেন। এরপর রিলস এর একটি টাইটেল বা ডেস্ক্রিপশন দিয়ে Share now বাটনে ক্লিক করতে হবে।

রিলস থেকে ইনকাম করার জন্য মনিটাইজেশনের শর্ত

এখানে ইনকাম করার জন্য প্রথমে আপনাকে মনিটাইজেশন করাতে হবে। মনিটাইজেশন হয়ে গেলে আপনার ভিডিওতে এড দেখাবে। তখন আপনার ইনকাম শুরু হবে। এই মনিটাইজেশনের শর্তগুলি হল-

  • ভিডিও এর কোন music কপি হওয়া যাবে না।
  • অন্যের ভিডিও হওয়া যাবে না।
  • ভিডিও এর দৈর্ধ্য ৯০ সেকেন্ডের মধ্যে হতে হবে। তবে ১ মিনিটের মধ্যে হলে ভাল ফল পাওয়া যায়।
  • রিলস ভিডিও গুলি ফেসবুক পেজ অথবা ফেসবুক প্রফেশনাল প্রোফাইল থেকে আপলোড করতে হবে।
  • নিয়মিত ভিডিও আপলোড দিতে হবে।
  • ভিডিও অনেক বেশি ভিউ হওয়া শুরু হতে হবে।
ফেসবুক রিলস থেকে আয়

How To Earn Money From Facebook Reels?

সহজে রিলস থেকে আয় করার জন্য মনিটাইজেশন যেভাবে অন করতে হবে

রিলস থেকে আয় করার জন্য আপনাকে অবশ্যই মনিটাইজেশন অন করতে হবে। এটা করলেই আপনার ভিডিওতে এড দেখানো শুরু করবে। যেভাবে সহজে মনিটাইজেশন অন করতে হবে-

১. Monetization বাটনে ক্লিক করাঃ

ফেসবুক প্রোফাইলের ক্ষেত্রে-

উপরের ডান দিকের প্রোফাইল পিকচারের উপর ক্লিক করতে হবে। এরপর উপরের বাম দিকের প্রোফাইল পিকচার এবং নামের উপর ক্লিক করতে হবে। এরপর View tools বাটনে ক্লিক করতে হবে।

আর ফেসবুক পেজের ক্ষেত্রে-

ফেসবুক পেজের ড্যাশবোর্ড থেকে professional dashboard এ ক্লিক করতে হবে। এরপর Monetization এ ক্লিক করতে হবে। এরপর Ads on Reels বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর Get Started বাটনে ক্লিক করতে হবে।

২. আপনার তথ্য দেওয়াঃ

Enter Business info থেকে CountryBusiness type, name, date of birth, address, city দিতে হবে। এরপর State, zip, Phone, Email, Tin certificate number দিয়ে next বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৩. ব্যাংকের তথ্য দেওয়াঃ

Choose how you’d like to get paid থেকে manually link bank account সিলেক্ট করতে হবে। এরপর Link payout method বাটনে ক্লিক করে country, bank account name, bank account number, swift code দিয়ে দিতে হবে।এরপর link payout method বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৪. ট্যাক্স এর তথ্য দেওয়াঃ

Add tax info বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর view access বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর next বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর address দিয়ে next বাটনে ক্লিক করতে হবে।এরপর next বাটনে ক্লিক করলে একটি একটি form আসলে review and submit বাটনে ক্লিক করে Done করে দিতে হবে। এরপর আবার next বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর Done বাটনে ক্লিক করতে হবে।

এভাবে আপনি খুব সহজেই মনিটাইজেশন অন করে নিতে পারবেন।

মনিটাইজেশনের আবেদনের কিছু দিনের মধ্যেই আপনার অ্যাড দেখানো শুরু করবেন। এর জন্য Earn money বাটনে ক্লিক করে দেখা যাবে Enable ads on reels অন দেখাবে।

রিলস ভিডিও থেকে কত টাকা ফেসবুকে জমা হলে টাকা তুলতে পারব?

এটা অন্যান্য বড় ভিডিও আপলোড করে ইনকাম করার মতই । আপনার অ্যাকাউন্টে ১০০ ডলার হলেই আপনি টাকা withdraw করতে পারবেন। সেই টাকা আপনার ব্যাংক একাউন্টে নিতে পারবেন। এর জন্য মনিটাইজেশনে আবেদনের সময় সঠিকভাবে ব্যাংকের সব তথ্য দিতে হবে।

রিলস (Reels) ভিডিও থেকে প্রতি মাসে কত টাকা আয় করা সম্ভব?

ফেসবুক রিলস দিন দিন অনেক বেশি জনপ্রিয় হচ্ছে। আপনি যদি আপনার ভিডিও গুলিকে অনেক বেশি জনপ্রিয় করতে পারেন। তাহলে এখান থেকে অনেক বেশি টাকা আয় করা সম্ভব।

আপনার যদি প্রতি ভিডিওতে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ হয়।

তাহলে আপনি মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন।

প্রথম দিকে আয় কিছুটা কম হলেও ধীরে ধীরে আপনার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথে আপনার আয় অনেক বেড়ে যাবে।

FAQ,

 

১. ফেসবুক রিল প্রতি 1000 ভিউতে কত টাকা দেয়?

এটা নির্ভর করে আপনার ভিডিও এর ক্যাটাগরির উপর।

আপনার ভিডিওটি যদি ফাইন্যান্স, টেক ইত্যাদি রিলেটেড হয়। যেখানে মানুষ এনগেইজড বেশি থাকে।

তাহলে আপনার বেশি টাকা ইনকাম হবে। আর আপনার কন্টেন্ট ফানি বা মিউজিক্যাল হলে ইনকাম কিছুটা কম হয়।

এছাড়া আপনার ভিজিটর কোন ইউরোপ, আমেরিকা, মধ্য প্রাচ্যের দেশ হয়। তাহলে আপনার ইনকাম অনেক বেশি হবে।

আপনাকে আসলে এটা নিয়ে চিন্তা করতে হবেনা। আপনি চেষ্টা করেন। আপনার ভিডিওটি যেন ভাইরাল হয়।

শেষকথা

ফেসবুক রিলস (Reels) ভিডিও থেকে টাকা আয় করা কোন কঠিন কিছু নয়।

আপনি চাইলেই লিপসিং করেও এখান থেকে মোটা অংকের টাকা আয় করতে পারবেন। তবে একটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

আপনি যেই ভিডিওই বানান না কেন তা যেন কোয়ালিটিফুল হয়। আর মানুষ যেন আপনার ভিডিও দেখে বিনোদন পায়, কিছু শিখতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন-