আমরা যারা বিমানে ভ্রমণ করতে চাই। তাদের সকলের অনলাইনে বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম জানা উচিত।

কেননা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়। বিমানবন্দর বাসা থেকে অনেক দূরে হয়।

আবার অনেক সময় রিটার্নিং টিকেট কাটার প্রয়োজন পড়ে।

সেক্ষেত্রে অনলাইনে টিকেট কাটা সবথেকে ভাল উপায়।

এছাড়া বিমানে ভ্রমণের মাধ্যমে খুব সময়ে গন্তব্যস্থানে পৌছানো যায়। এছাড়া এই ভ্রমণে দুর্ঘটনা অনেক কম ঘটে থাকে।

বাংলাদেশের কিছু বিমান পরিবহণ সংস্থা

আগে বিমান শুধুমাত্র বিদেশ যাওয়ার জন্য ব্যবহৃত হলেও।

এখন দেশের এক স্থান থেকে আরেক স্থান যেতে বিমান ব্যবহৃত হচ্ছে। আগের থেকে এখন বিমানে যাত্রী অনেক বেশি।

বাংলাদেশে এখন অনেক বিমান কোম্পানী ডোমেস্টিকভাবে ও আন্তর্জাতিকভাবে বিমান সেবা দিচ্ছে। যেমন-

  • বিমান বাংলাদেশ (Biman Bangladesh)
  • ইউ এস বাংলা (Us Bangla)
  • নভো এয়ার (Novo Air)
  • এয়ার অ্যাস্ট্রা ( Air Astra)

আরো পড়ুনঃ

বিমানের টিকেট কাটার এপসঃ

অনলাইনে বিমানের টিকেট কাটিতে জানতে হবে কোথায় আমরা এই টিকেট কাটব।

এর জন্য বিভিন্ন এপস ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিমানে টিকেট কাটা যাবে। প্রতিটি এপস বা ওয়েবসাইটের প্রায় একই সিস্টেম।

আর আপনি আপনার মোবাইল দিয়ে এই টিকেট কাটতে।

এপস এর মাধ্যমে টিকেট কেটে আপনি পৃথিবীর অনেক দেশ ও বাংলাদেশের অনেক স্থানে যেতে পারবেন। বিমানে টিকেট কাটার ওয়েবসাইট হল-

  • ফ্লাইট এক্সপার্ট (Flight Expert)
  • উইগো (Wego)
  • এমি বিডি (Amy Bd)
  • গো জায়ান (Gozayaan)
  • শেয়ারট্রিপ (Share Trip)
  • বিমান বাংলাদেশ (Biman Bangladesh Airlines Ltd)
  • ইউএস বাংলা (US Bangla)
  • নভোএয়ার (Novo Air)
  • এয়ার অ্যাস্ট্রা (Air Astra)

অনলাইনে বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম

বিমানে টিকিট কাটার জন্য অনেক দেশি ও বিদেশি ওয়েবসাইট আছে। সকল ওয়েবসাইটের টিকিট কাটার সিস্টেম মূলত একই। টিকিট কাটার নিয়ম হল-

১. প্রথমে অ্যাপ থেকে বা ওয়েবসাইটে ঢুকতে হবে। এরপর এখানে sign Up করতে হবে। এরপর আপনার ইউজার নাম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে sign in করতে হবে।

বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম

How to book an airline ticket online?

২. এরপর আপনি যেখান থেকে ভ্রমণ করবেন। আর যে জায়গায় যাবেন তা সিলেক্ট করতে হবে। এখানে আপনি One way, Round way অথবা multi city সেট করতে পারেন।

বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম

বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম

৩. এরপর আপনাকে Date সেট করে search বাটনে ক্লিক করতে হবে। আপনি one way হলে ১টি date আর round way হলে ২টি date সেট করবেন। এছাড়া কতজন যাবেন তা সেট করতে হবে।

৪. আপনাকে বিভিন্ন বিমান কোম্পানীর, বিভিন্ন সময়ের ফ্লাইট দেখাবে। এখান থেকে আপনার পছন্দমত একটি ফ্লাইটের পাশে select বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৫. আপনি যদি দেশের মধ্যে ভ্রমণ করেন। তাহলে আপনার ভোটার আইডিতে থাকা নাম দিতে হবে। এছাড়া মোবাইল ও ইমেইল দিতে হবে। আর দেশের বাইরে ভ্রমণ করলে। এগুলোর পাশাপাশি আপনার Date of birth দিতে হবে। আর পাসপোর্ট নাম্বার, পাসপোর্ট, Expiry date ও পাসপোর্টের ছবি দিতে হবে। তারপর continue বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৬. আপনাকে আপনার পেমেন্ট করতে হবে। আপনি বিকাশ, নগদ, রকেট, উপায়, ক্রেডিট কার্ড ইত্যাদির মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবেন।

৭. পেমেন্ট করার পর আপনার ইমেইলে একটি কনফার্মেশন আসবে। আর আপনার টিকেট পিডিএফ ফাইল আকারে ইমেইলে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ইমেইল পেতে দেশের বাইরের ফ্লাইট হলে ১ ঘন্টা ও দেশের মধ্যে হলে ৫ মিনিট লাগবে।

৮. টিকেট পাওয়ার পর আপনি সেটা প্রিন্ট দিয়ে ভ্রমণ করতে পারবেন।

বিমানের টিকেট মূল্য

অনলাইনে বিমানের টিকেট কাটার নিয়ম তো জানা হল। কিন্তু এই টিকিটের মূল্য কত তা কিভাবে জানব। এটা আপনাকে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে জেনে নিতে হবে। সকল কোম্পানির টিকেট মূল্য প্রায় সমান। আপনি যেকোন একটি কোম্পানী থেকে টিকেট কাটতে পারেন।

কয়েকটি সাধারণ জিজ্ঞাসা

বিমানে দেশের ভেতর ভ্রমণ করতে কি পাসপোর্ট লাগবে?

না। দেশের ভেতর ট্রাভেল করতে কোন পাসপোর্ট লাগবে না। তবে দেশের বাইরে হলে লাগবে।

বিমানে দেশের ভেতর ভ্রমণ করতে কি লাগবে?

সাথে ন্যাশনাল আইডি কার্ড বা নিজের অফিসিয়াল কার্ড রাখলে ভাল।

শেষকথা

আপনারা যারা বিদেশে যেতে চাচ্ছেন। অথবা যারা দেশের মধ্যে আরামে এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতে চাচ্ছেন। তাদের জন্য বিমান খুবই ভাল চয়েজ।

আপনি বিমানে ভ্রমণ করার জন্য অনলাইনে টিকেট কাটতে পারেন। তবে আপনাকে অবশ্যই সঠিকভাবে অনলাইনে টিকেট কাটার নিয়ম জানতে হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন-