একাদশ শ্রেণি কলেজ মাইগ্রেশন খুবই গুরত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

অনেক শিক্ষার্থী তাদের পছন্দমত কলেজ পান না। তারা তখন আরো ভাল কলেজে যেতে চান। সেক্ষত্রে তখন মাইগ্রেশন কাজে লাগে।

এই মাইগ্রেশন করাটা একদম সহজ।

একাদশ শ্রেণি কলেজ মাইগ্রেশন কিভাবে করতে হয়

কলেজ মাইগ্রেশন বা কলেজ পরিবর্তন একটা অটোমেটিক সিস্টেম।

আপনি যদি কলেজ ভর্তি আবেদনে যেকোন একটি কলেজ পান। তাহলে আপনাকে নিশ্চায়ন করতে হয়।

আর এই নিশ্চায়ন করার সাথে সাথে আপনার মাইগ্রেশন অন বা চালু হয়ে যায়।

ধরুন, আপনি কলেজ চয়েজে ৫ টি কলেজ দিয়েছিলেন। এর মধ্যে আপনি ৩ নাম্বার কলেজটি পেয়েছিলেন। এতে করে তখন আপনার ১ ও ২ নাম্বার কলেজ পাওয়ার মাইগ্রেশন অন হয়ে যাবে।

অর্থাৎ আপনি ৩ নাম্বার কলেজ পাওয়ার পর যদি ১ অথবা ২ নাম্বারে কলেজের আসন ফাকা হয়।

তবে আপনি এই দুই কলেজের যেকোন একটি পেতে পারেন।

মাইগ্রেশন সরাসরি বোর্ড থেকে হয়ে থাকে। এতে আপনার কিছু করার থাকজে না।

আপনি যদি মনে করেন। আপনি ৩ নাম্বার কলেজেই পড়বেন।

কিন্তু মাইগ্রেশন হয়ে আপনি ২ নাম্বার কলেজ পেয়েছেন। তাহলে আপনাকে ২ নাম্বার কলেজেই পড়তে হবে।

তবে আপনি যদি ১ নাম্বার কলেজ পান। তাহলে আপনার মাইগ্রেশন অন হবে না।

কলেজ মাইগ্রেশন রেজাল্ট কবে দিবে

১ম পর্যায়ের নির্বাচিত শিক্ষার্থীদেরকে ৭/৯/২০২৩ থেকে ১০/৯/২০২৩ এর মধ্যে নিশ্চায়ন করে ফেলতে হবে । এতে করে তাদের মাইগ্রেশন চালু হয়ে যাবে। ১ম পর্যায়ের মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ পাবে ১৬/৯/২০২৩ রাত ৮ টায়। যারা প্রথম পর্যায়ে কলেজ পাননি।

তারা আবার ২য় ও ৩য় পর্যায়ে আবেদন করতে পারবেন। ২য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ হবে ১২/৯/২০২৩ থেকে ১৪/৯/২০২৩ রাত ৮ টা পর্যন্ত। ৩য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ হবে ২০/৯/২০২৩ থেকে ২১/৯/২০২৩ পর্যন্ত। ২য় ও ৩য় পর্যায়ের ফল প্রকাশ পাবে যাথাক্রমে ১৬/৯/২০২৩ ও ২৩/৯/২০৩। ২য় মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ পাবে ২/৯/২০২৩

একাদশ শ্রেণি কলেজ মাইগ্রেশন এর শর্ত কি কি?

  • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই কোন কলেজ পেতে হবে।
  • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই নিশ্চায়ন করেত হবে।
  •  শিক্ষার্থীকে কলেজ চয়েজে প্রথম কলেজ পাওয়া যাবে না।
একাদশ শ্রেণি কলেজ মাইগ্রেশন

একাদশ শ্রেণি কলেজ মাইগ্রেশন

কলেজ মাইগ্রেশন ভাল নাকি ২য় বার আবেদন করা ভাল?

কোন শিক্ষার্থী যদি নিশ্চায়ন করে থাকে। তাহলে তার মাইগ্রেশন অটো চালু হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থী যে কলেজে চান্স পেয়েছেন। তার থেকে উপরের কলেজে চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে।

কারণ অনেকেই কলেজে ভর্তি না হওয়ার ফলে সিট ফাকা থাকলে তার চান্স হয়ে থাকে। তবে এক্ষত্রে অনেকে আছে যারা পছন্দমত কলেজ না পেয়ে নিশ্চায়ন করেন না। এক্ষেত্রে তাদের আবেদনটি বাতিল হয়ে যায়। তখন তাদেরকে ২য় বার আবেদন করতে হয়।

অনেক শিক্ষার্থী মনে করেন। ২য় বার আবেদন করলে হয়ত ভাল কলেজ পাওয়া যাবে। এটা একদম ভুল ধারণা। ২য় বারে ভাল কলেজ পাওয়া আরো কঠিন। এতে প্রথম বারের থেকেও মানে খারাপ কলেজ পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই যারা কলেজ পেয়েছেন। তাদের সকলের উচিত নিশ্চায়ন করে মাইগ্রেশন চালু করা।

আর যারা কলেজ পাননি, তাদের উচিত ২য় বার আবেদন করা। তাই নিশ্চায়ন করে কলেজ মাইগ্রেশন চালু করা ভাল। ২য় বার আবেদন করার থেকে। বিশেষ করে যারা ১ম বারেই কলেজ চান্স পেয়েছেন।

মাইগ্রেশন এর রেজাল্ট কিভাবে পাব?

১. কলেজ মাইগ্রেশনের রেজাল্ট দেখার জন্য নিচের লিংকে ক্লিক করতে হবে

http://xiclassadmission.gov.bd/

২. এরপর এখান থেকে আগের মত ফলাফল বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৩. যেই নতুন পেজ ওপেন হবে, এখান থেকে Roll, Board, Passing year, Reg no, verification no দিয়ে view result বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনার যদি মাইগ্রেশন হয়। তাহলে আপনি আপনার নতুন মাইগ্রেশনকৃত কলেজ দেখতে পারবেন। আর যদি মাইগ্রেশন না হয়। তাহলে আপনি আপনার আগের কলজেই দেখতে পারবেন।

মনে রাখবেন মাইগ্রেশন অনকরার জন্য আপনাকে অবশ্যই নিশ্চায়ন করতে হবে। নিশ্চায়ন ব্যতীত আপনার পুরো আবেদনটিই বাতিল হয়ে যাবে।

শেষকথা

মাইগ্রেশনে কারো হাত নেই। এটা বোর্ড কর্তৃক নির্বাচিত হবে। আপনার পাওয়া কলেজের থেকে উপরের কলেজে যদি আসন খালি থাকে। আর আপনার যদি ভাগ্য ভাল থাকে। তাহলে আপনি মাইগ্রেশনের মাধ্যমে আরো ভাল কলেজে যেতে পারবেন।

অবশ্যই পড়ুনঃ একাদশ শ্রেণিতে কলেজ ভর্তি হতে কি কি কাগজপাতি প্রয়োজন ২০২৩

পোস্টটি শেয়ার করুন-