তরুণ নির্মাতা সাজ্জাদ খান নির্মিত ‘সাহস’ সিনেমা দেশের প্রেক্ষাগৃহে ‘প্রদর্শনযোগ্য নয়’ বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড। আর দু’একদিনের মধ্যেই এর প্রযোজক-পরিচালককে চিঠি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি জানানো হবে।

সেন্সর বোর্ডের সচিব মমিনুল হক বলেন, ‘সেন্সর বোর্ডের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ছবিটি অপ্রদর্শনযোগ্য বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এতে অশ্লীল সংলাপ, গালাগালি ও ভায়োলেন্স রয়েছে। এর পরিমাণ এত বেশি যে এটি সেন্সর করতে গেলে ছবিতে আর কিছু থাকবে না। আর কাহিনির ধারাবাহিকতাও নেই। তাই এটি প্রদর্শনযোগ্য নয়।’

Advertisement

তিনি জানান, কেন ছবিটি সেন্সর সার্টিফিকেট পেলো না, তা চিঠি আকারে পাঠানো হবে এর প্রযোজক শাপলা মিডিয়া বরাবর। চিঠিটা তৈরি আছে। আজ-কালের মধ্যেই এটি পেয়ে যাবেন তারা।

নির্মাতা সাজ্জাদ খান বলেন, ‘আমরা এখনও পর্যন্ত অফিসিয়ালি কোন চিঠি পাইনি। পেলে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব।’

‘সাহস’ প্রযোজনা করেছে শাপলা মিডিয়া। এর প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন নাজিয়া হক অর্ষা ও অভিনেতা মোস্তাফিজুর নূর ইমরান। গল্পে তাদের নাম নীলা ও রায়হান। দু’জন অভিনয় করেছেন স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে। আরও আছেন খাইরুল বাসার, রাজু, তুর্যসহ অনেকে। এছাড়াও এর বিভিন্ন চরিত্রে বাগেরহাটের থিয়েটার রেপার্টরির সদস্যরা অভিনয় করেছেন। 

এর আগে, চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে চলচ্চিত্রশিল্পকে ‘নেতিবাচকভাবে উপস্থাপনের’ অভিযোগে পরিচালক অনন্য মামুনের ‘মেকআপ’ সিনেমাটি ‘অপ্রদর্শনযোগ্য’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড। সংশোধনের পর ছবিটি এবার সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। আগামী ২৫ জুন ছবিটি হলে মুক্তি পাচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন পরিচালক। 

Advertisement