ব্যক্তিগত জীবনকে প্রকাশ্যে আনতে রাজি নন ভারত দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা। বিশেষ করে মেয়ে ভামিকার বিষয়ে। 

জন্মের পর এখনও মেয়ের ছবি প্রকাশ্যে আনেননি এ তারকা দম্পতি। এমনকি পাপারাজ্জিদের হুশিয়ারিও দিয়েছেন, তারা যেন তাদের অনুমতি না নিয়ে ভামিকার ছবি না তুলেন বা প্রচার না করেন।

Advertisement

এর পরও কোহলি-আনুশকার সেই সতর্কবার্তাকে অবজ্ঞা করে ভামিকার ছবি তোলার জন্য ওঁৎ পেতে থাকেন ভারতীয় ফটোগ্রাফাররা। 

সেই সুযোগটি এবারও নিতে চেয়েছিলেন তারা। মুম্বাই বিমানবন্দরে সে চেষ্টাও করা হয়েছে। যদিও এবারও শতভাগ সফল হতে পারেননি তারা।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে বুধবার রাতে মুম্বাই থেকে ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছে টিম ইন্ডিয়া। দীর্ঘ সফরে বিরাট কোহলির সঙ্গী হয়েছেন তার সহধর্মিণী আনুশকাও। আর যথারীতি মায়ের সঙ্গে ইংল্যান্ডে গেছে ভামিকাও। এদিন ভামিকার ছবি তুলতে বিমানবন্দরেই ওঁৎ পেতে বসেছিলেন ভারতীয় পাপারাজ্জিরা। সুযোগ বুঝে বেশ কয়েকটি ছবিও তুলে ফেললেন তারা। তবে কোনো ছবিতেই ভামিকার মুখখানা দেখা যায়নি। মেয়েকে আড়াল করতে যতরকম চেষ্টা করা যায় সবই করেছেন আনুশকা।

পাপারাজ্জিদের তোলার সেসব ছবি ভারতের সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল এখন। 

ছবিগুলো নিয়ে নেটিজেনদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার তৈরি হয়েছে। তৈরি হয়েছে দুই দল। উভয় দলই ছবিগুলোর বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। কেউ পাপারাজ্জির ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। কেউ বা আনুশকা শর্মার ওপর। 

অনেকের মতে, কেউ যদি তার সন্তানের ছবি প্রকাশ্যে আনতে না চান, এর জন্য সতর্কও করেন; তবে কেন বারবার ওঁৎ পেতে থেকে ছবি তুলতে হবে আর তা ভাইরাল করতে হবে।

আবার অনেকের মতে, বিরুস্কা দম্পতি একটু বেশিই বাড়াবাড়ি করছেন। ভামিকার ছবি এ দম্পতির ভক্ত-অনুরাগীদের দেখার কৌতূহল থাকবেই। বিষয়টি বিবেচনায় নেওয়া উচিত এ তারকা দম্পতির। 

অনেকে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, পাপারাজ্জিদের নজর থেকে ভামিকাকে বাঁচাতে এবার যেভাবে তাকে বুকের মধ্যে জড়িয়ে ধরেছিলেন আনুশকা, তাতে ভামিকার দমবন্ধ হয়ে যেতে পারত।

Advertisement