৩৮ স্ত্রী, ৮৯ সন্তান ও ৩৩ নাতি-নাতনি রেখে মারা গেলেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় সংসারের কর্তা জিওনা চানা। রোববার মিজোরামের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন তিনি। মৃত্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। 

তার পুরো নাম জিওনঙ্ঘাকা। রাজ্যের বাকতাওং ত্লাংনুয়াম গ্রামে পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন জিওনা। এক  টুইট বার্তায়  জিওনার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন মিজোরামের মুখ্যমন্ত্রী জোরামথাঙ্গা। খবর এনডিটিভির

Advertisement

তিনি লেখেন, ‘শোকাক্রান্ত হৃদয়ে জিওনাকে (৭৬) বিদায় জানাচ্ছে মিজোরাম। ধারণা করা হয়, ৩৮ স্ত্রী ও ৮৯ সন্তান নিয়ে তিনি বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবারের কর্তা ছিলেন। এ পরিবারের কারণে তাদের গ্রাম বাকতাওং ত্লাংনুয়াম ও মিজোরাম পর্যটকদের অন্যতম আগ্রহের জায়গা হিসেবে বিবেচিত হয়। শান্তিতে থাকুন, স্যার।’

জিওনা ১৯৪৫ সালের ২১ জুলাই মিজোরামে জন্ম নেন । প্রথম বিয়ে করেন মাত্র ১৭ বছর বয়সে। প্রথম স্ত্রী ছিলেন বয়সে তার চেয়ে তিন বছরের বড়। এরপর একে একে ৩৮ টি বিয়ে করেন তিনি। সংসারে জন্ম নেন ৮৯ জন সন্তান। 

পুরো পরিবার নিয়ে পাহাড়ি গ্রামে একটি চারতলা বাড়িতে থাকতেন তিনি। স্থানীয় লোকজনের কাছে তার শতাধিক কক্ষের এই বাড়ি ‘চুয়ান থার রান’ বা ‘নিউ জেনারেশন হোম’ নামে পরিচিত। বাড়িতে জিওনার স্ত্রী, সন্তানদের জন্য আলাদা আলাদা কক্ষ থাকলেও তারা সবাই একত্রেই খেতেন। নিজস্ব সম্পদ ও ধর্মীয় অনুসারীদের দানে পুরো পরিবারটির অন্নসংস্থান হতো। জিওনার এই সংসার পর্যটকদের নজর কেড়েছিল।

Advertisement