হুটহাট করে প্রেসার লো হওয়া খুব স্বাভাবিক বিষয়, এটা এমন কোন চিন্তার বিষয় নয়। প্রেসার লো হওয়া মানে স্বাভাবিক যে রক্তচাপ রয়েছে তা থেকে কমে আসা। প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে আপনার রক্তচাপ বেড়ে গেলে যেমন ক্ষতির আশঙ্কা থাকে সে রকম কোন কিছুই হয় না।  

প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে আপনি শুধুমাত্র শারীরিক ভাবে আবসাদ গ্রস্থতা অনুভব করে থাকেন, সব সময় দুর্বল মনে হয় কিংবা মাথা ঘুরছে বলে মনে হয় কিংবা সব সময় মেজাজ খিটখিটে হয়ে থাকে, যে কোন ধরনের কাজ করতে অনিহা লাগে। এ বিষয়গুলো খুব সহজেই সমাধান করা সম্ভব শুধুমাত্র নিচের লেখা নিয়মগুলো মেনে –

ADVERTISEMENT

আপনার যদি মনে হয় যে আপনার প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে গেছে তাহলে সবার আগে তা মেপে দেখুন। মেপে না দেখে কোন কিছুই করতে যাবেন না। কারন অনেক সময় এমন হয় যে অনেকে মনে করেন যে তাদের  প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে গেছে কিন্তু আসলে তা অনেক সময় বেড়ে গেলেও একি রকম মনে হয়ে থাকে।

প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে সবার আগে কখন ওষুধ খাবার কথা চিন্তা করবেন না। সবার আগে ঢিলেঢালা পোশাক পরে ফ্যানের নিচে বসুন, যদি টাই কিংবা শার্ট পড়ে থাকেন তাহলে তার বোতাম আলগা করুন। এরপর খাবার স্যালাইন খান, তবে একসাথে অনেক স্যালাইন খেতে যাবেন না, ধিরে ধিরে খান।

প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে তা চটজলদি ঠিক করার যে সর্বপ্রথম উপায় তা হল ডিম খাওয়া। তবে এই ডিম আপনাকে খেতে হবে সিদ্ধ করে ও সেই সাথে প্রয়োজনের থেকে একটু বেশি লবন দিয়ে। সিদ্ধ ছাড়া অন্য কোন ভাবেই ডিম খাবেন না কারন এতে কোন লাভ হবে না। সবথেকে ভাল হয় যদি আপনি আপনি ডিমটি আধা সিদ্ধ করে খান, এতে আপনার  প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে তা খুব তাড়াতাড়ি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

প্রেসার লো বা রক্তচাপ কমে আসলে আপনার যত ধরনের মানসিক চাপ কিনবা হতাশা তা মাথা থেকে ঝেরে ফেলুন, সেই সাথে ভাল কিছু নিয়ে ভাবুন