সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রেমের গল্প এখন বিভিন্ন সময় শোনা যায়। কেউ তো আবার এক দেশ থেকে অন্য দেশে ছুটে গিয়ে বিয়ে পর্যন্ত করছেন। কেবল অনলাইনে ভালোবাসার মানুষটাকে দেখার জন্য বহু ঝক্কি-ঝামেলা পোহাচ্ছেন অনেকেই। কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার এক তরুণী যেন সব ঘটনাকে ছাপিয়ে গেছেন।

জানা গেছে, অনলাইন গেম ফ্রি ফায়ার খেলতে খেলতেই এক ছেলের সঙ্গে পরিচয় হয় জাম্বির এক কিশোরীর। তাদের সম্পর্ক নাকি ভালোবাসাতে পরিণত হয়। 

Advertisement

এরপর সেই তরুণকে দেখতে বাবার মোটরসাইকেল বিক্রি করে দেয় কিশোরী। সেই টাকায় কিনে ফেলে বিমানের টিকিট। ইন্দোনেশিয়ার ওই তরুণীর ঘটনা ভাইরাল।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ওই কিশোরী ভালোবাসার মানুষটিকে দেখতে ব্যাকুল হয়ে ওঠে। কিন্তু তার সঙ্গে দেখা করতে গেলে যে বিমানে চাপতে হবে। কারণ অনলাইনে যোগাযোগ হওয়া প্রেমিকের বাড়ি জাকার্তায়। তাই বিমানের টিকিটের টাকা জোগাড় করতে নিজের বাবার বাইকটাই বেচে দেয় কিশোরী। 

জানা গেছে, ২০ মিলিয়ন রুপিয়াহ-তে সেই বাইকটি বিক্রি করে সে। যার দাম এক লাখ টাকার একটু বেশি। এতকিছুর পরেও কিসোর স্বপ্ন পূরণ হয়নি। বাবার বাইক বিক্রি করতে পারলেও জাকার্তায় আর তার যাওয়া হয়নি। কারণ প্রেমিকই শেষে বেঁকে বসে। জানিয়ে দেয়, সে কিশোরীর সঙ্গে দেখা করতে চায় না। ব্যস, মুহূর্তেই কিশোরীর সব স্বপ্ন শেষ।
সূত্র : কলকাতা টোয়েন্টিফোর

Advertisement