বগুড়ার আদমদীঘিতে রেললাইনের পাশ থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় সিরাজুল ইসলাম সুমন (৩০) নামের এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার সকাল ৬টায় উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের লকু কলোনীর খেলার মাঠ এলাকায় রেল লাইনের পাশ থেকে পুলিশ তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আরিফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, সকালে লকু কলোনীর খেলার মাঠ এলাকায় একটি বস্তা দেখতে পেয়ে ফাঁড়িতে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বস্তার ভেতরে ওই যুবকের প্লাস্টিকের দঁড়ি দিয়ে হাত-পা ও মুখের মধ্যে কাপর গুজিয়ে কসটেপ দিয়ে মুখ বাঁধা অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। পরে চিকিৎসার জন্য তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Advertisement

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক আব্দুল ওয়াদুদ জানান, বস্তাবন্দি সিরাজুল ইসলাম সুমন নীলফামারীর ঝোপাচুড়ি গ্রামের বাবুল ইসলামের ছেলে। তিনি কয়েকবছর পূর্বে নওগাঁর কির্ত্তিপুরের শালুকা গ্রামে বিয়ে করেছিলেন। স্ত্রী রিনা বেগমের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় গত ৫-৬ মাস আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর রিনা বেগম অন্যত্র বিয়ে করলেও পরবর্তীতে তিনি সুমনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেন।

তিনি আরো জানান, গত ২৮ মে সুমন বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন। তারপর থেকে পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি করছিলেন। এক পর্যায়ে রবিবার সকালে লকু কলোনীর খেলার মাঠ এলাকায় স্থানীয়রা তাকে বস্তাবন্দি দেখে পুলিশে খবর দেয়। বর্তমানে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Advertisement