আমরা অনেকেই আমাদের ঠোঁট বিভিন্ন লিপ বাম বা লিপিস্টিক দিয়ে গোলাপি করে থাকি। কিন্তু প্রাকৃতিক ভাবেই বিভিন্ন উপাদান ব্যবহার করে এই ঠোঁট সুন্দর, স্বাস্থ্যবান ও গোলাপি করা যায়। বিভিন্ন ধরনের বাজে খাবার খাবার খাওয়া, এলার্জী জনিত কারণ, এছাড়া অতিরিক্ত ধুমপানের ফলে আমাদের ঠোঁট কাল হয়ে যায় বা এর আসল রং বিলুপ্ত হয়ে যায়। এছাড়া অনেক বাজে ও ক্ষতিকর কেমিক্যাল যুক্ত লিপস্টিক ও লিপ বাম ব্যবহারের ফলেও ঠোঁট এর আসল রং নষ্ট হয়। শুধু তাই নয়, রক্তে শর্করার ঘাটতি, ভিটামিনের অভাব, অতিরিক্ত ঠান্ডা আবহাওয়া, প্রেগনেন্সি জনিত কারণে ঠোঁটের রং কালো হয়ে যায় এখন দেখুন কিভাবে ঠোঁটের রং প্রাকৃতিকভাবেই গোলাপি করা যায়ঃ

Advertisement

বাদাম তেল, মধু ও চিনির মাধমেঃ

১ চামচ বাদাম তেল, ১ চামচ মধু ও ২ চামচ চিনি একসাথে মিক্স করে এটি ঠোঁটে হালকা করে স্ক্রাব করতে হবে। এভাবে নিয়মিত করলে ঠোঁটের উপরের ডেড সেল গুলি দূর হয়ে যাবে। আর ঠোঁট ধীরে ধীরে গোলাপি হয়ে উঠবে।

অ্যালোভেরা ও মধুঃ

অ্যালোভেরা ও মধু দুইটিই ঠোঁটকে হাইড্রেট করে। ১ চামচ মধু ও ১ চামচ প্রাকৃতিক অ্যালোভেরা একসাথে মিশিয়ে এটি ঠোঁটের উপর লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে নিয়িমিত ব্যবহারের ফলে ঠোঁট খুব সুন্দর ও গোলাপি হয়ে উঠবে।

নিয়মিত ঠোঁট এক্সফোলিয়েট করুনঃ

একটি ভেজা পাতলা কাপড় অথবা ১ টি টুথব্রাশ দিয়ে হালকা করে ঠোঁট ঘষুন। এটি আপনার ঠোঁটের ডেড সেল দূর করবে। আর এতে রক্ত চলাচল খুব ভাল হবে। এছাড়া রাতে ঘুমানোর আগে ঠোঁটে নারিকেল তেল দিয়ে ঘুমাতে হবে। এইবভাবে ঠোঁট প্রাকৃতিকভাবেই
অনেক নরম ও গোলাপি হয়ে উঠবে।

ঠোঁটে সর্বদা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করুন ও ঠোঁটকে ময়েশ্চারাইজ রাখুনঃ

ঠোঁটে সর্বদা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে ঠোঁটকে গোলাপি বা লাল করতে হবে। ঠোঁটে ক্ষতিকর কেমিক্যাল যুক্ত লিপস্টিক ব্যবহার না করে ডালিম, বিটরুট বা রাস্পবেরির রস ব্যবহার করে ঠোঁট লাল বা গোলাপি করুন। এগুলি আপনার ঠোঁটে প্রাকৃতিকভাবে
ভিটামিন সি যোগান দিবে যা ঠোঁটের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভাল। খুবই ভাল মানের অ্যালোভেরা জেল বাজার থকে কিনে এনে তা ঠোঁট ময়েশ্চারাইজ করতে নিয়মিত ব্যবহার করুন।

ধুমপান ত্যাগ করুন ও সূর্য থকে ঠোঁটকে দূরে রাখুনঃ

আপনি যদি ঠোঁটকে গোলাপি করতে চান, তবে ধুমপান ত্যাগ করুন। নিয়মিত ধুমপানের ফলে অতিরিক্ত তাপে ঠোটের উপরিভাবগের সেল পুড়ে গিয়ে ঠোঁট অনেক কালো হয়ে যায়। এছাড়া ঠোঁটে কালো কালো দাগ পড়ে যায়। আর ঠোঁটের রং একেবারে কালো হতে শুরু
করে। তাই এখনই ধুমপান ছেড়ে দিন।এছাড়া সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি ঠোঁটের কালো হওয়ার জন্য দায়ী। তাই সূর্যের আলো পরিহার করুন। আর সূর্যে গেলে এস পি এফ ১৫ বা তার অধিক যুক্ত লিপ বাম ব্যবহার করুন।

ভিটামিন ই প্রয়োগঃ

একটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভেংগে এর মধ্যে থেকে তেল বের করে তা ঠোঁটের উপর হালকা করে প্রয়োগ করুন। এটি নিয়মিত করলে আপনার ঠোঁটের রক্ত চলাচল ঠিক থাকবেও ঠোঁট সুন্দর ও গোলাপি হবে। এছাড়া লিপবাম পছন্দের ক্ষেত্রে দেখে নিতে হবে এর মধ্যে ভিটামিন ই আছে কিনা।

ঠোঁট গোলাপি করতে যেসকল খাবার খেতে হবেঃ

ঠোঁট গোলাপি করতে যেসকল খাবার সাহায্য করে থাকে তা হল- টোমেটো, ডাবের পানি, আখরোট, টক দই, মধু, অ্যালোভেরা, লেবু, তরমুজ, বেরি জাতীয় ফল। এই খাবার গুলি ভিটামিন সি, সেলেনিয়াম, ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড, ম্যাগ্নেশিয়াম ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সম্মৃদ্ধ। যা ঠোঁটের প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগান দিয়ে ঠোঁটকে গোলাপি করে থাকে।

Advertisement