এ এক বীরের গল্প। আর সেই বীর কোন মানুষ নয়। সে একটি কুকুর। সে তার মালিকের সন্তানকে বাচাতে প্রাণের মায়া ত্যাগ করে নদীতে ঝাপ দিয়ে বাঁচিয়ে তুলল। এর এমন ঘটনাই ঘটেছে দক্ষিন অস্ট্রেলিয়ার নরল্যাং পোর্টে।

মালিকের ছোট্ট ছেলেটিক হঠাৎ নদীতে পড়ে ভেসে যাচ্ছিল। এমন অবস্থায় মালিক যদি নদীতে ঝাঁপ দেয়, তবে সে ছেলের সাথে নিজেও ডুবে যাবে। তাই তিনি ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে রইলেন তার ভাসমান ছেলে ধীরে ধীরে তলিয়ে যাচ্ছে। ঠিক এমন অবস্থায় মালিক সিদ্ধান্ত নিলেন, তিনি তার ছেলেকে বাচানোর জন্য নদীতে ঝাঁপ দিবেন।

Advertisement

এর মধ্যে তার পোষ্য কুকুর ম্যক্স নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাতারানো শুরু করে দিয়েছে। আর সে সাঁতরে তার ছেলের কাছে পৌঁছে গেছে। এ সময় তার মালিক চিৎকার করে তার ছেলেকে হালকা করে ভেসে থাকার অনুরোধ করছিলেন। এমন সময় ম্যক্স বাচ্চাটির লাইফ জ্যাকেট কামড়ে নিয়ে আসে নদীর তীরে।

এই ঘটনা দেখার জন্য নদীর তীরে হাজারো মানুষের সমাগম হয়ে যায়। এদের মধ্যে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, একটি কুকুর তার মালিকের জন্য নিজের জীবন দিয়ে দিতে পারে। আর ম্যক্স তার জ্বলন্ত উদাহরণ। মালিকের ছেলের ডুবে যাওয়া ম্যাক্স মোটেও সহ্য করতে পারেনি। কারণ তার মালিক খুব কষ্ট পাচ্ছিল, যা ম্যাক্স মেনে নিতে পারেনি। তাই তার এই জীবন বাজি রাখা। কেননা এখানে ম্যাক্স নিজেও তলিয়ে যেতে পারত।

এদিকে ম্যাক্স তীরে এসে খুব ফুরফুরে মেজাজে আছে। সে বার বার লেজ নেড়ে নেড়ে জানান দিচ্ছে যে , সে খুব গর্বের কাজ করেছে। আর এই কাজ করে সে খুবই খুশি ও তৃপ্ত। ম্যাক্সের মালিক রব অসবর্ন জানালেন, ”তিনি আনন্দিত কৃতজ্ঞ। বুলডগ প্রজাতির কুকুরা হিংস্র হয়। তবে ম্যাক্স যা করে দেখালো তার জন্য তার সম্মান প্রাপ্য। তাদের পরিবারের হিরো এখন পোষা ম্যাক্স। ম্যাক্সের সুখ্যাতি এখন মুখে মুখে নরল্যাং জুড়ে।”

Advertisement