বহুল আলোচিত-সমালোচিত ও জনপ্রিয় বিনোদনমূলক অ্যাপ টিকটকে অ্যাকাউন্ট খুলেছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। যা এখন টক অব দ্য কান্ট্রিতে পরিণত হয়েছে। অনেকে এটিকে সাধুবাদ জানালেও কেউ কেউ প্রেসিডেন্টের এমন উদ্যোগের মজা করছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত শুক্রবার টিকটকে অ্যাকাউন্ট খুলেছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আলভি। পরে এ তথ্য তার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা হয়। সেখানে টিকটক অ্যাকাউন্টের লিংকও দেয়া হয়। দেশের তরুণদের মধ্যে ইতিবাচক বার্তা ছড়িয়ে দিতেই তার এ উদ্যোগ বলে জানান।

Advertisement

এক টুইটার ব্যবহারকারী সাধুবাদ জানিয়ে লেখেন, প্রেসিডেন্টের এমন উদ্যোগ বাস্তববাদী ও দারুণ। তবে সমালোচনাই তুলনামূলক বেশি। একজন লেখেন, তার এ উদ্যোগ আমাকে হতাশ করেছে। অবশ্য এটাও ঠিক যে দেশের নিষ্কর্মা তরুণদের বার্তা দিতে এমন উদ্যোগ দরকার ছিল। কারণ, তারা অধিকাংশ সময় এ ধরনের অপ্রয়োজনীয় জিনিস দেখেই কাটিয়ে দেয়।

আরেকজন টুইটার ব্যবহারকারী প্রেসিডেন্টকে রীতিমতো নাচের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, আপনি টিকটকে থাকবেন আর নাচের চ্যালেঞ্জ নেবেন না, তা হয় না।

প্রসঙ্গত, বেশ কয়েকবার বিভিন্ন কারণে পাকিস্তানে টিকটক অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হলেও পরবর্তীতে সে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়।

Advertisement