নাকের উপর ক্রমাগত নানা ধরনের ময়লা, তেল ও মরা কোষ জমে সেই স্থানে ব্লাক হেডস হয়ে থাকে। এটা এক ধরনের ব্রণ যার মাথার অগ্রভাগে কালো হয়ে থাকে। এগুলি নাকের উপর জোরে জোরে টিপে বের করা যায়। কিন্তু এতে ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণুর সংমিশ্রণে আরো বেশি হয়ে যায়। সাধারনত প্রতিটি প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ এই সমস্যার সম্মুখীন হোন। কিছু ঘরোয়া উপায়ে খুব সহজেই এই ব্ল্যাকহেডস দূর করা যায়। দেখে নিন কি কি উপায়ে এটি দূর করা যায়ঃ

ত্বকের যত্নে সঠিক প্রসাধনীর ব্যবহারঃ

Advertisement

অনেক কেমিক্যালযুক্ত ও খারাপ প্রসাধনী ব্যবহারে এই সমস্যা সবথেকে বেশি হয়ে থাকে। তাই ত্বকের যত্নে যেন তেন প্রসাধনী ও মেকাপ ব্যবহার থেকে দূরে থাকতে হবে।

ত্বক সবসময় পরিষ্কার রাখাঃ

ব্ল্যাকহেডস সাধারণত ময়লা ও জীবানুযুক্ত ত্বকে বেশি হয়। তাই সব সময় মুখ নাক ও নাকের চারপাশে খুব ভালভাবে ফেসওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করে ধুতে হবে।

বেডশীড ও বালিশ পরিষ্কার রাখাঃ

প্রতি সপ্তাহে বেড ও বালিশের কভার পরিষ্কার করে ব্যবহার করতে হবে। কারণ নোংরা কাপড় থেকে ও নোংরা গামছা বা তোয়ালে ব্যবহারে নাকে ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। তাই এগুলো সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে।

দেখে নিন ব্ল্যাকহেডস হলে কি কি উপায়ে তা দূর করা যাবেঃ

বেকিং সোডাঃ

১ চামচ বেকিং সোডা নিয়ে এতে পানি মিশিয়ে পেস্ট করে ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত স্থানে হালকা করে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে রাখতে হবে। ৫ মিনিট ঠান্ডা পানি দিয়ে ঘষে ঘষে বেকিং সোডা তুলে ফেলতে হবে। এতে নাক থেকে সকল ব্ল্যাকহেডস দূর হয়ে যাবে।

সাদা টুথপেস্ট, চিনির গুড়া, লেবুর মিশ্রণঃ

১ চামচ চিনির গুড়া, ১ চামচ লেবুর রস ও কিছুটা সাদা টুথপেস্ট এই তিন উপাদান একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা নাকের উপর লাগিয়ে রেখে ১০ মিনিট পর ডলে ডলে তুলে ফেলতে হবে। এতেও ব্ল্যাকহেডস দূর হবে।

লেবু, লবণ ও মধুঃ

১ চামচ লেবুর রস, আধা চামচ লবণ ও ১ চামচ মধু মিশিয়ে মিশণটি ভালকরে নাকের ব্ল্যাকহেডস এর উপর মেখে ১০মিনিট পর একইভাবে ডলে ডলে তুলে ফেলতে হবে । এতেও ব্ল্যাকহেডস দূর হবে।

ত্বকে স্টিম নিয়েঃ

একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে তার ধোয়ার উপর ত্বক রাখতে হবে। এতে ত্বকের পোরগুলি বড় হয়ে যাবে। আর খুব সহজে তখন নাকের ভেতর কার ব্ল্যাকহেডস গুলি বের করে ফেলা যাবে। এর জন্য তখন
একটি পাতলা পরিষাষ্কার কাপড় নিয়ে নাক থেকে টিপে টিপে সকল ব্ল্যাক হেডস বের করে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

Advertisement