ব্ল্যাক হেডস্‌ খুবই সাধারণ একটি সমস্যা। এটি সাধারোণত আমাদের মুখের ত্বকের বেশি হয়। তবে এটি নাকে সবথেকে বেশি হয়ে থাকে। ব্ল্যাকহেডস্‌ এ উপরের দিকের মুখটা কালো হয়ে থাকে আর ভিতরে সাদা হয়ে থাকে। এটি নিয়মিত হওয়ার ফলে ত্বক ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। নানা কারণে ব্ল্যাক হেডস্‌ হয়ে থাকে। তবে সাধারোণত ময়লা ও ধুলিকণা জমেই এটি সবথেকে বেশি হয়ে থাকে। নিয়িমিত ত্বক পরিষ্কার না করলে এই সমস্যা আরো বেড়ে যায়। তখন দেখতে খুবই বাজে দেখায়। আসুন দেখে নেই, কিভাবে প্রাকৃতিক ভাবে এটি ভাল করা যায়।

Advertisement

ক্ষতিকর প্রোডাক্ট ব্যবহার না করাঃ

অনেক সময় অনেক ক্ষতিকর প্রসাধনী ব্যবহারের ফলে আমাদের ব্ল্যাকহেডস্‌ হয়ে থাকে। তাই যে প্রসাধনী ব্যবহারে এটি বেড়ে যাবে, তখন সেটি আর একদমই ব্যবহার করা যাবে না। সবসময় প্রসাধনী ব্যবহারের সময় খেয়াল রাখতে হবে, এতে যেন প্রাকৃতিক উপাদান থাকে। আর মেকাপ ব্যবহারের পর তা ভালভাবে ফেসয়াশ দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। কারণ মেকাপ ব্ল্যাকহেডস্‌ অনেক বাড়িয়ে দিতে পারে।

ফাইবার জাতীয় খাবার খাওয়াঃ

শাকসবজি ও ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার বেশি খেতে হবে। কারণ এগুলিতে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার আছে। যা আমাদের শরীরের ক্ষতিকর পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে। তাই তখন আমাদের ত্বক ভাল থাকে। আর তখন ব্ল্যাকহেডস্‌ একেবারেই কম হয়। এছাড়া নিয়িমিত প্রচুর পানি পান করলে এর থেকে রেহায় পাওয়া যায়।

বিছানার বালিশ ও চাদর নিয়মিত পরিষ্কার করাঃ

বিছানার বালিশ ও চাদর অপরিষ্কার হলে সেখান থেকে তেল ও ময়লা আমাদের ত্বকে জমে ব্ল্যাকহেডস্‌ হতে পারে। তাই নিয়মিত বিছানার বালিশ ও চাদর পরিষ্কার করতে হবে।

নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার রাখাঃ

নিয়মিত ত্বক একটি ভাল ফেসওয়াশ দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। বিশেষ করে ঘুম থেকে উঠে ও ঘুমাতে যাবার পূর্বে ত্বক ফেসওয়াশ পরিষ্কার করতে হবে। এছাড়া বাইরে থেকে এসে সঙ্গে সঙ্গে ত্বক পরিষ্কার করে নিতে হবে।

আইসিং সুগার, মধু ও টুথপেস্টের ব্যবহারঃ

অর্ধেক চামচ আইসিং সুগার অর্ধেক চামচ মধু ও কিছুটা সাদা টুথপেস্ট ভালভাবে মিশিয়ে নিয়ে ব্ল্যাকহেডস্‌ এর উপর লাগিয়ে রাখতে হবে। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে প্রতি সপ্তাহে ২ বার করলে ব্ল্যাকহেডস্‌ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

লবণ, লেবু ও মধুর ব্যবহারঃ

পরিমাণমত এই ৩ টি উপাদান নিয়ে পেস্ট করে ব্ল্যাকহেডস্‌ এ লাগিয়ে ৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। সপ্তাহে এটি ১ দিন করলে ত্বক অনেকটা পরিষ্কার হবে ও ব্ল্যাকহেডস্‌ দূর হবে।

এছাড়া ডিমের সাদা অংশ অথবা টমেটোর রস দিয়ে ত্বক স্ক্রাবিং করলেও ব্ল্যাকহেডস্‌ দূর হয়ে যায়।

Advertisement