রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের একটা অডিও সাক্ষাতকার ফাঁস হয়ে গেছে। যাতে তিনি তার ক্লাবের তারকা ফুটবলারদের নিয়ে বেফাঁস সব মন্তব্য করেছেন। স্প্যানিশ দৈনিক ‘এল কনফিদেনশিয়াল’ প্রতিদিন সিরিজ আকারে সেই অডিও সাক্ষাতকারের অংশবিশেষ প্রকাশ করছে। এবার পত্রিকাটি জানিয়েছে রিয়ালের সাবেক তারকা মেসুত ওজিলের অসংখ্য বান্ধবী আর লাগামছাড়া যৌনজীবনের গল্প। তার কথায় জানা গেছে তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান এই মুসলিম ফুটবলারের অন্য রূপের কথা।

২০১০ বিশ্বকাপের পর রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন ২১ বছর বয়সী মেসুত ওজিল। সে সময় রিয়ালের কোচ ছিলেন হোসে মরিনহো। ওজিলের পাস থেকে অনেক গোল করেছেন রোনালদো। অডিওতে ওজিলকে নিয়ে পেরেজ বলেছেন, ‘২১ বছর বয়সে যখন ওজিলএল, ওর সঙ্গে একজন বান্ধবী ছিল। কিন্তু মাদ্রিদের জীবনযাত্রা সম্পর্কে দ্রুত জানার ফলে সে তার নিজের লাইফস্টাইল পাল্টে ফেলে। সে তার পুরনো বান্ধবীকে বিদায় বলে দিয়ে নতুন সঙ্গী হিসেবে ইতালির এক মডেলকে জুটিয়ে নেয়। কয়েকদিন পরপর সেই মডেলকে নিয়ে ওজিল তার ব্যক্তিগত বিমানে চেপে মজা করত।’

Advertisement

পেরেজ আরও বলেন, ‘মরিনহো তখন ওজিলকে ডেকে বললেন, “তোমার এই বান্ধবী তো এসি মিলানের সব খেলোয়াড়ের সঙ্গে বিছানায় গিয়েছে, ইন্টার মিলানের সবার সঙ্গেও। এমনকি দলগুলোর কোচিং স্টাফও বাদ যায়নি।” আমার মনে হয়, ওই কথা শুনেই সেই বান্ধবীকেও ত্যাগ করেছে ওজিল।’ অবশ্য আরেক সাবেক রিয়াল তারকা জিনেদিন জিদানের প্রশংসাই করেছেন পেরেজ, ‘ফিগো ড্রেসিংরুম নষ্ট করে দিয়েছিল। আস্ত একটা বদমাশ! সে আর রাউল সবচেয়ে বদমাশ ছিল। তবে জিদান সবচেয়ে ভালো ছিল।’

Advertisement